এইমাএ পাওয়া

৯১ হাজার টাকার বৈদেশিক মুদ্রা নিতে পারবে প্রত্যেক হাজি

এপ্রিল ২৪, ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিনিয়োগ বার্তা:

বাংলাদেশ থেকে সরকারি ব্যবস্থাপনায় এবার হজের যেতে ইচ্ছুক প্রত্যেক হজযাত্রী ৯১ হাজার ২৫০ টাকার সমপরিমাণের বৈদেশিক মুদ্রা সঙ্গে নিতে পারবেন। এর মধ্যে কোরবানির খরচ বাবদ ৫০০ সৌদি বা ১০ হাজার ৭৫০ টাকা এবং হজের সার্বিক খরচ ছাড়া ব্যক্তিগতভাবে ১ হাজার মার্কিন ডলার বা ৮০ হাজার ৫০০ টাকা ব্যয় করতে পারবেন।

হজযাত্রীদের লেনদেনের বিষয়ে ডিলার ব্যাংকগুলোকে দিক-নির্দেশনা দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের পাঠানো সার্কুলারে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনায় আরও বলা হয়েছে, হজযাত্রীদের প্রত্যেককে প্যাকেজ-১ এর অধীনে ৩ লাখ ৮১ হাজার ৫০৮ টাকা এবং প্যাকেজ-২ এর অধীনে ৩ লাখ ১৯ হাজার ৩৫৫ টাকা খরচ করতে হবে।

ধর্ম মন্ত্রণালয় প্রণীত হজ প্যাকেজ-২০১৭ এর আলোকে সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যেতে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের থেকে স্থানীয় মুদ্রায় অর্থ জমার বিপরীতে বৈদেশিক মুদ্রা ইস্যু এবং অন্যান্য কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রের ডিলার ব্যাংকগুলোকে বেশকিছু বিষয় অনুসরণ করতে হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের পাঠানো সার্কুলারে বলা হয়েছে, প্রচলিত ব্যবস্থায় টিএম ফরমে আবেদনের ভিত্তিতে কনফার্ম রিটার্ন এয়ার টিকেট এবং আন্তর্জাতিক পাসপোর্টে এনডোর্সমেন্টপূর্বক বৈদেশিক মুদ্রা ইস্যু করা যাবে। বিমান টিকেটে উল্লিখিত যাত্রার তারিখের ২ (দুই) সপ্তাহের বেশি সময় আগে কোনো বৈদেশিক মুদ্রা ইস্যু করা যাবে না। হজযাত্রীর আন্তর্জাতিক পাসপোর্টে দেওয়া সই বা টিপসই টিএম ফরমে অনুরূপভাবে নিয়ে নির্ধারিত পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা শুধু সংশ্লিষ্ট হজযাত্রীর কাছে হস্তান্তরের বিষয়টি অনুমোদিত ডিলাররা নিশ্চিত করতে হবে।
বিনিয়োগ বার্তা/সোহেলী