এইমাএ পাওয়া

২২ মে শুরু ঢাকা-খুলনা-কলকাতা রুটে বাস চলাচল

মে ১৬, ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিনিয়োগ বার্তা:

চলতি বছরের আগামী ২২ মে থেকে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের (বিআরটিসি) সহযোগিতায় ঢাকা-খুলনা-কলকাতা রুটে বাস চলাচল শুরু হবে। ওই দিন সকাল ৭টার দিকে আনুষ্ঠানিকভাবে এই রুটের উদ্বোধন করবেন বিআরটিসির চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান। বেসরকারি গ্রিনলাইন পরিবহন পরিচালিত ঢাকা থেকে এ সেবা দেবে বলে জানানো হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার থেকে ঢাকা-খুলনা-কলকাতা রুটে বাস চলাচলের কথা থাকলেও ভারতীয় কর্তৃপক্ষের প্রস্তুতি কার্যক্রম শেষ না হওয়ায় এই সেবা শুরুর তারিখ আরও এক সপ্তাহ পেছানো হয়েছে।

গ্রিনলাইন পরিবহনের জেনারেল ম্যানেজার আব্দুস সাত্তার জানান, ঢাকা থেকে রওনা হয়ে এই রুট দিয়ে একই বাসে কলকাতা যেতে পারবেন যাত্রীরা। যাত্রাপথে কোনো গাড়ি পরিবর্তন করতে হবে না।

তিনি জানান, মাওয়া থেকে কলকাতায় যাওয়া প্রথম বাস সার্ভিস হবে এটি। বর্তমানে ঢাকা থেকে যাত্রার পর মাওয়া-খুলনা হয়ে কলকাতায় পৌঁছুতে প্রায় ১২ ঘণ্টার সময় লাগবে। পদ্মা সেতু চালু হলে এই সময় আরও কমে যাবে।

আব্দুস সাত্তার আরও বলেন, গ্রিনলাইন পরিবহন ও বিআরটিসির যৌথ উদ্যোগে একদির পর পর এই বাস ঢাকা-খুলনা-কলকাতার মধ্যে সরাসরি চলাচল করবে।
গ্রিনলাইন বাস সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, প্রতি সোম, বুধ ও শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টায় কমলাপুর বিআরটিসি বাস টার্মিনাল থেকে ছেড়ে যাবে বাস। বেলা দেড়টায় বাসটি খুলনায় পৌঁছানোর পর যাত্রীদের খাবার ও বিশ্রামের জন্য সর্বোচ্চ ২৫ মিনিট সময় দেওয়া হবে।

খুলনার রয়্যাল মোড় থেকে বেলা ২টায় বাসটি কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা হবে। বেনাপোলে পৌঁছাবে বিকেল ৪টায়। দুই পারের ইমিগ্রেশন ও কাস্টমসের কাজ শেষ করে রাত ৮টার দিকে কলকাতার সল্টলেক করুণাময়ী আন্তর্জাতিক বাস টার্মিনালে গিয়ে পৌঁছাবে।

কলকাতার সল্টলেক করুণাময়ী বাস টার্মিনাল থেকে প্রতি মঙ্গল, বৃহস্পতি ও শনিবার সকাল সাড়ে ৭টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা করবে গ্রিনলাইনের বাস। রাত ৮টার দিকে বাসটি ঢাকায় এসে পৌঁছাবে।

গ্রিনলাইন পরিবহনের বেনাপোল অফিসের ম্যানেজার রবীন্দ্রনাথ রায় জানান, কলকাতাগামী পরিবহনটির প্রথম সার্ভিস দেওয়া বাসটি ৪০ সিটের। এর মধ্যে ঢাকায় ৩৬টি আসন এবং খুলনা থেকে বাকি ৪টি আসন বরাদ্দ হয়েছে।

বিনিয়োগ বার্তা/জিকো