এইমাএ পাওয়া

সৌদি বাজেট: প্রবাসীদের ওপর মাসিক ফি

ডিসেম্বর ২২, ২০১৬

ডেস্ক, বিনিয়োগবার্তা:
আগামী ২০১৭ অর্থবছরের জন্য বাজেট ঘোষণা করেছে সৌদি আরব। নতুন বাজেটে দেশটির ঘাটতি আরও কমানো হয়েছে। এসময়ে ঘাটতি ধরা হয়েছে ৫ হাজার ৩০০ কোটি ডলার।

বৃহস্পতিবার মন্ত্রিপরিষদ সভায় দেশটির নতুন অর্থমন্ত্রী মোহাম্মদ আল জাদান এ বাজেট ঘোষণা করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন সৌদির বর্তমান বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল-সৌদ।

বাজেট বক্তব্যে জানানো হয়, নতুন বছরের জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ২৩ হাজার ৭০০ কোটি ডলার। এর বিপরীতে দেশটির বিভিন্ন খাত থেকে আয় ধরা হয়েছে ১৮ হাজার ৪০০ কোটি ডলার।

বাজেটে চলতি অর্থবছরেও ঘাটতি কমবে বলে জানানো হয়েছে। সে অনুযায়ী- এ বছর দেশটির ঘাটতি কমে ৭ হাজার ৯০০ কোটি ডলার দাঁড়াতে পারে; আগের পূর্বাভাস থেকে যা প্রায় ৯ শতাংশ কম। ২০১৫ সালে সৌদির এই ঘাটতি ছিল প্রায় ১০ হাজার কোটি ডলার; যা দেশটির ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি।

আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের টানা দরপতনে দেশটির অর্থনীতি যখন ভেঙ্গে পড়েছে- তার মধ্যেই এ বাজেট ঘোষণা করা হলো। বাজেটে আগামী ৫ বছরের জন্য একটি পরিকল্পনার কথা বলা হয়েছে। যেখানে তেল, গ্যাস, পানির দাম বাড়ানোসহ ভর্তুকি কমানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

প্রেসটিভি নামের এক টেলিভিশন চ্যানেলে বলা হয়েছে, এই প্রথম দীর্ঘমেয়াদী কোনো অর্থনৈতিক পরিকল্পনা নিয়ে বাজেট ঘোষণা করেছে সৌদি আরব।

আরব নিউজের খবরে বলা হয়েছে, নতুন বাজেটে প্রবাসী শ্রমিকদের ওপর মাসিকহারে ফি ধরা হয়েছে। তবে কত ধরা হয়েছে- তা শেষ খবর পর্যন্ত পত্রিকাটির বাজেট পরবর্তী কোনো সংবাদে উল্লেখ করা হয়নি। তবে এর আগের প্রতিবেদনে এই হার ৮০০ রিয়েলের কাছাকাছি আরোপ হতে পারে বলে জানানো হয়। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ১৬০০০ টাকা।

প্রসঙ্গত, সৌদি আরবে বর্তমানে ২০ লাখের বেশি বাংলাদেশি শ্রমিক কর্মরত আছে। সৌদি সরকার তার দেশের অর্থনীতি বাঁচাতে যে নীতি ঘোষণা করেছে আয়ের ওপর নতুন ফি বাস্তবায়ন হলে তার গেড়াকলে পড়তে হবে এসব বাংলাদেশিকে।
বিনিয়োগবার্তা/এসকে