এইমাএ পাওয়া

সদরঘাটে আজ যাত্রীদের উপচেপড়া ভীড়

জুন ২৪, ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিনিয়োগ বার্তা:

ঈদের আনন্দ পরিবারের সঙ্গে ভাগ করে নিতে ঢাকা ছাড়ছে রাজধানীবাসী। পথে ভোগান্তি যাই হোক না কেন একটাই লক্ষ পরিবার-পরিজনের সাথে ঈদের আনন্দ একসাথে উপভোগ করা।

সকালে সদরঘাটে গিয়ে দেখা যায়, গত দুদিনের চেয়েআজ যাত্রীদের চাপ একটু বেশী। ভোর থেকেই ঘরমুখো যাত্রীদের নিয়ে ছেড়ে গেছে কয়েকটি লঞ্চ। পাশাপাশি একই গন্তব্যের জন্য একাধিক লঞ্চ নোঙর করা রয়েছে।

অন্যান্য বছরের তুলনায় এবছর পল্টুনে যাত্রীদের হয়রানি,ধস্তাধস্তি কম উল্লেখ করে ঢাকা নদী বন্দরের যুগ্ম পরিচালক গুলজার আলী বিনিয়োগ বার্তাকে বলেন, দক্ষিণাঞ্চলগামী যাত্রীদের জন্য নতুন পল্টুন করা হয়েছে। লঞ্চে যেতে অনেক গুলো পথ করে দেয়ার কারণে সহজেই ভোগান্তি ছাড়া যাত্রীরা লঞ্চে উঠতে পারছে। তাছাড়া পল্টুনের সংখ্যাও আগের চেয়ে বাড়ানো হয়েছে। তাই সদরঘাটের চিরচেনা সেই চিত্র এবছর দেখা যায়নি।

যাত্রীরদের চাপ সামলাতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানান ঢাকা নদীবন্দরে নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের পরিচালক জয়নুল আবেদিন।

তিনি বলেন, আমরা সব ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে প্রস্তুত রয়েছি। যাত্রীর সংখ্যা গত কয়েকদিনের তুলনায় আজ অনেক বেশি। এবারে ৪১টি নৌরুটে ২০৬টি লঞ্চ চলাচল করবে।

ভাড়ার বিষয়ে তিনি বলেন, এবার ভাড়া বেশি আদায়ের অভিযোগ এখনো শোনা যায়নি। লঞ্চের অগ্রিম টিকিট ছাড়া কারও কাছ থেকে ভাড়া আদায় করছে না লঞ্চ মালিকরা।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কমডোর মোজাম্মেল হক বিনিয়োগ বার্তাকে বলেন, যাত্রী সেবা বৃদ্ধিতে অনেক পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে । পল্টুন হকার মুক্ত এবং নিরাপত্তা অনেক জোরদার করা হয়েছে, আনন্দের ঈদ কোন পরিবারে যেন কান্নায় পরিণত না হয় সেদিকে খেয়াল রেখেই আমরা কাজ করে চলেছি।

বিনিয়োগ বার্তা/এমআর