এইমাএ পাওয়া

সতর্ক ভারতের সামনে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ

জুন ১৫, ২০১৭

মো. পারভেজ আবেদীন, বিনিয়োগ বার্তা:

আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির স্বপ্নের ফাইনালের খুব কাছাকাছি মাশরাফির দল। আর মাত্র একটি সিঁড়ির অপেক্ষা, সে ধাপ অতিক্রম করতে পারলেই ফাইনালে পৌঁছে যাবে বাংলাদেশ। স্বপ্ন যাই হোক পরবর্তী একটি সিঁড়ির অতিক্রম করা যে খুব সহজ হবে না তা বলার অপেক্ষা রাখে না, কারণ টাইগারদের টপকাতে হবে ডিপেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের।

বার্মিংহামের এজবাস্টনে আজ মাঠে নামার আগে মাশরাফিবাহিনী আত্মবিশ্বাসী করে তুলছে ২০০৭ বিশ্বকাপ। যেখানে টুর্নামেন্টে গ্রুপ পর্বের ম্যাচে ভারতকে হারিয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ। আবার ভাবনায় আছে ঘরের মাঠে ২০১৫ সালের সিরিজ জয়ও। দুর্দান্ত খেলে দাপটের সঙ্গে দেশের মাটিতে ভারতকে ওয়ানডে সিরিজে হারিয়ে দেয় টাইগাররা।

এদিকে নিজেদের প্রথম ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে ১২৪ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে আসর শুরু করে ভারত। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কার কাছে পরাজিত হয়েও দুর্দান্ত প্রতাপে শীর্ষ দল দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে শেষ চারের টিকিট নিশ্চিত করেছে ভারতীয়রা। ব্যাট হাতে দুর্দান্ত ফর্মে আছেন শিখর ধাওয়ান, বিরাট কোহলি, যুবরাজ সিংরা। আর বল হাতে ভুবনেশ্বর, বুমরা, যাদবরাও আছেন দুর্দান্ত ফর্মে। এর মধ্যে প্রস্তুতি ম্যাচে আছে এই মাঠেই বাংলাদেশকে বড় ব্যবধানে হারানোর স্মৃতি।

তবে সব কিছুর পরও বাংলাদেশের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে সতর্ক ভারত অধিনায়ক। এ নিয়ে তিনি বলেন, সেমিফাইনালে বাংলাদেশ দলকে হালকাভাবে নিতে নারাজ কোহলি, ‘বাংলাদেশ দল এখন আর কারও কাছে বিস্ময় নয়। অনেক উন্নতি করেছে তারা। দেশটির ক্রিকেট ব্যবস্থাপনাকে কৃতিত্ব দিতেই হবে। দলের খেলোয়াড়রা দায়িত্ব নিয়ে খেলছে। গত দুই বছর ধরে ভালো ক্রিকেট খেলছে। বিশেষ করে ২০১৫ বিশ্বকাপের পর। বাংলাদেশকে হালকাভাবে নেয়ার মানেই নেই।’
এদিকে পরিসংখ্যানের হিসেবে বাংলাদেশের চেয়ে অনেক অনেকটাই এগিয়ে ভারত। এখন পর্যন্ত ৩২টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে এ দুই দল। এর মধ্যে ভারত ২৬টি এবং বাংলাদেশ ৫টিতে জয় পেয়েছে। একটি ম্যাচে কোন ফলাফল আসেনি।

তবে ভারতের বিপক্ষে সেমিফাইনালে আরেকটি মাইলফলকের সামনে দাঁড়িয়ে সাকিব। আর মাত্র ৩২ রান হলেই নাম লেখাবেন অলরাউন্ডারদের ৫ হাজার রানের ক্লাবে। পাশাপাশি তার পকেটে রয়েছে দুই শতাধিক উইকেট শিকারের রেকর্ডও। ক্রিকেট বিশ্বের পঞ্চম ক্রিকেটার হিসেবে এ মাইলফলক ছুঁতে যাচ্ছেন সাকিব। এ রেকর্ডবুকে রয়েছেন সনাৎ জয়াসুরিয়া, জ্যাক ক্যালিস, শহীদ আফ্রিদি ও আব্দুর রাজ্জাক।

বার্মিংহামের এজবাস্টনে আজ ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩.৩০ মিনিটে। সরাসরি সম্প্রচার করবে বিটিভি, মাছরাঙা টিভি, গাজী টিভি ও স্টার স্পোর্টস ১।

বাংলাদেশ সম্ভাব্য একাদশ :
তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, মুশফিকুর রহীম, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, তাসকিন আহমেদ, মাশরাফি বিন মর্তুজা, রুবেল হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান।

ভারত সম্ভাব্য একাদশ :
রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, বিরাট কোহলি, যুবরাজ সিং, মাহেন্দ্র সিং ধোনি, কেদার যাদব, হার্দিক পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজা, ভুবনেশ্বর কুমার, রবীচন্দ্রন অশ্বিন, জাস্প্রিত বুমরাহ।

বিনিয়োগ বার্তা/জিকো