এইমাএ পাওয়া

ফেসবুকের প্রথম দিকের ১০টি তথ্য

জুলাই ৮, ২০১৭

প্রযুক্তি ডেস্ক, বিনিয়োগ বার্তা:

২০০৪ সালে হার্ভাডের ডর্মে মার্ক জাকারবার্গসহ ফেসবুকের কো ফাউন্ডাররা The Facebook এর লঞ্চ করেছিল। পরবর্তীতে The কেটে নাম হয় শুধুই ফেসবুক। ২০০৫ সালে ফেসবুকে ফটো ফিচার যুক্ত হয়।

❏ শুনতে হাস্যকর মনে হলেও ২০০৮ এর ফেসবুকে কভার ছিল না, লাইক ছিল না। চ্যাট ছিলো না। ২০০৮ এর শেষ দিকে ফেসবুকে চ্যাট অপশন যোগ হয়। সেই চ্যাটে চ্যাট করার চাইতে চিঠি পাঠানো বরং ভাল ছিল। আলাদা উইন্ডো খুলে চ্যাট লিস্ট শো করাতে হত যে চ্যাট লিস্টে আবার কেউ অনলাইন থাকত না।

❏ বাংলাদেশে ফেসবুকের প্রথম দশ হাজার ইউজারের রিইউনিয়ন কনসার্ট হয়েছিল বসুন্ধরা সিটিতে। মাত্র দশ হাজার্। আজ এ দেশের কোটি মানুষ ফেসবুক ইউজ করে।

❏ ২০০৯ এর ফেব্রুয়ারিতে ফেসবুকের ইতিহাসের সবচেয়ে লেজেন্ডারি চেঞ্জটা আসে। যেটা নিয়ে আজকের এত ভেজাল সেটা হল পোস্টে লাইক বাটন। মজার ব্যাপার হল লাইক বাটনের কারণে প্রাইভেসি নষ্ট হবে বলে তখন ১.৭ মিলিয়ন ফেসবুক ইউজার লাইক বাটন তুলে নেয়ার দাবি জানিয়েছিল।

❏ ২০১০ সালে লঞ্চ হয় ফেসবুক পেজ।

❏ ২০১১ তে মার্ক জাকারবার্গ ফেসবুক লে আউট পুরাই চেঞ্জ করে দেন। যুক্ত হয় ফেসবুক টাইম লাইন, ফেসবুক কভার এবং টুইটার থেকে হাল্কা কপি মেরে সাবসক্রাইব বাটন। সে সাবস্ক্রাইব বাটনের আজকের নাম ফলোয়ার বাটন।

এই সময়ে ফেসবুক নেটওয়ার্কিং কি কাজে লাগিয়ে সংঘটিত হয় ইতিহাসের অন্যতম তিনটি পাবলিক মুভমেন্ট-

১ ওকুপাই ওয়ালস্ট্রিট .২ মিসরের তেহরির স্কয়ারআন্দোলন ৩. শাহবাগ আন্দোলন।

এই তিনটি আন্দোলনেই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে ফেসবুক। এর মাধ্যমে প্রমাণিত হয় ফেসবুকের শক্তি। তাছাড়া রাজন হত্যায় খুনি গ্রেফতার এবং দ্রুত শাস্তি হয়, যার পিছনে ফেসবুকের শক্তি ছিল দেখার মত।

এগিয়ে যাচ্ছে ফেসবুক, এগিয়ে যাচ্ছে বিশ্ব, শুভ হোক ফেসবুকের আগামীর পথচলা!

বিনিয়োগ বার্তা/জিকো