এইমাএ পাওয়া

প্রবাসীর তালিকায় ওমানে শীর্ষে বাংলাদেশ

ডিসেম্বর ২৬, ২০১৬

ডেস্ক, বিনিয়োগবার্তা:

প্রথমবারের মতো প্রবাসীর তালিকায় মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ওমানে শীর্ষে উঠে এসেছে বাংলাদেশের নাম। ওমানের সরকারি পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে, অন্য যেকোনো দেশ থেকে আসা প্রবাসীর চেয়ে সেখানে বাংলাদেশির সংখ্যা এখন বেশি।

গত কয়েক দশকে শ্রমিকদের এ অবস্থান দখল করেছিল ভারত। কিন্তু নভেম্বরের তথ্য-উপাত্তে দেখা গেছে ভারতকে অতিক্রম করেছে বাংলাদেশ। খবর টাইমস অব ওমানের।

ওমানের জাতীয় পরিসংখ্যান ও তথ্য কেন্দ্রের প্রতিবেদন অনুযায়ী, নভেম্বর শেষে দেশটিতে ৬ লাখ ৯৪ হাজার ৪৪৯ জন বাংলাদেশি রয়েছে। অন্য দিকে ভারতের রয়েছে ৬ লাখ ৯১ হাজার ৭৭৫ জন। প্রবাসীদের তালিকায় দেশটি দ্বিতীয় অবস্থানে আছে। প্রতিবেশি দেশ পাকিস্তানের রয়েছে ২ লাখ ৩১ হাজার ৬৮৫ জন।

বাংলাদেশ দূতাবাসের এক মুখপাত্র জানান, বড় বড় প্রকল্পের জন্য বাংলাদেশিরা এখন ওমানের পছন্দের তালিকায় প্রথম দিকে। তাছাড়া এখানে শ্রমিকরা যে টাকা পায় তা খুবই কম; মাসে সেটা ৯০-১০০ ওমান রিয়াল। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ১৮ হাজার থেকে ২১ হাজার টাকা। এই অল্প বেতনে অন্য দেশের শ্রমিকদের আনা তেমন সহজ না। কিন্তু বাংলাদেশিরা এই অল্প বেতনেও কাজ করতে চায়। সে কারণে দেশটিতে বাংলাদেশির সংখ্যা বাড়ছে।

ভারতের মুখপাত্র জানান, ভারত দিন দিন উন্নত হচ্ছে। সেকারণে অনেকেই এখন নিজ দেশে ফিরতে চাচ্ছে। যার প্রভাব পড়ছে বিদেশের শ্রমবাজারে।

নভেম্বর মাসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, এ মাসে বাংলাদেশ ও পাকিস্তান থেকে যথাক্রমে ৯ হাজার ৪২৪ ও ১ হাজার ২৮৭ জন ওমানে এসেছে। অন্যদিকে ভারতের ১ হাজার ৬০৭ জন ওমান ছেড়েছে।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত বছরের এই সময়ে ওমানে বাংলাদেশির সংখ্যা ছিল ৫ হাজার ৯০ হাজার ১৭০ জন আর ভারতের ছিল ৬ লাখ ৬৯ হাজার ৮৮২ জন।

অথচ, ৩ বছর আগেও এই সংখ্যা ছিল যথাক্রমে ৪ লাখ ৯৬ হাজার ও ৬ লাখ। এই সময়ে বাংলাদেশি বেড়েছে ১ লাখ ৯৭ হাজার ৬৮৮ জন। আর ভারতের প্রবাসী বেড়েছে মাত্র ৯১ হাজার ৪২৬ জন।

ওমানের প্রবাসী তালিকায় অন্যান্য উল্লেখযোগ্য দেশের মধ্য রয়েছে- ইথিওপিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, মিশর, নেপাল ও শ্রীলঙ্কা।
বিনিয়োগবার্তা/এইচকে